1. clients@www.dainikbangladesh71sangbad.com : DainikBangladesh71Sangbad :
  2. frilixgroup@gmail.com : Frilix Group : Frilix Group
  3. kaziaslam1990@gmail.com : Kazi Aslam : Kazi Aslam
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১১:১৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
জরুরী নিয়োগ চলছে জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল দৈনিক বাংলাদেশ ৭১ সংবাদ দেশের প্রতিটি বিভাগীয় প্রতিনিধি, জেলা,উপজেলা, স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি, ক্যাম্পাস ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি বা সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। সাংবাদিকতা সবার স্বপ্ন, আর সেই স্বপ্ন পূরণ করতে আপনাদেরকে সুযোগ করে দিচ্ছে দৈনিক বাংলাদেশ ৭১ সংবাদ দেখিয়ে দিন সাহসীকতার পরিচয়, অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে সাংবাদিকতার বিকল্প নেই। আপনার আশপাশের ঘটনা তুলে দরুন সবার সামনে।হয়ে উঠুন আপনিও সৎ, সাহসী সাংবাদিক। দৈনিক বাংলাদেশ ৭১ সংবাদ পোর্টাল নিয়োগ এর নিদের্শনাবলী: ১/জীবন বৃত্তান্ত ( cv) ২/জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি। ৩/সদ্যতোলা পাসপোর্ট সাইজের ছবি ১কপি। ৪/সর্বনিম্ন এইচএসসি পাস/সমমান পাস হতে হবে। ৫/বিভিন্ন নেশা মুক্ত হতে হবে। ৬/নতুনদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। ৭/স্মার্টফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে। ৮/স্মার্টফোন ব্যবহারে পারদর্শী হতে হবে। ৯/দ্রুত মোবাইলে টাইপ করার দক্ষতা থাকতে হবে। ১০/বিভিন্ন স্থানে ভ্রমন এর মানসিকতা থাকতে হবে। ১১/সৎ ও পরিশ্রমী হতে হবে। ১২/অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই। ১৩/নারী-পুরুষ আবেদন করতে পারবেন। ১৪/রক্তের গ্রুপ যুক্ত করবেন। ১৫/স্থানীয় দের সাথে পরিচয় লাভ করতে হবে। ১৬/উপস্থিত বুদ্ধি, সঠিক বাংলা বানান, ও শুদ্ধ বাংলায় পারদর্শী হতে হবে। ১৭/ পরিশ্রমী হতে হবে যোগাযোগের জন্য ইনবক্সে মেসেজ করুন cv abuyousufm52@gmail.com দৈনিক বাংলাদেশ ৭১সংবাদ মোবাইল নং(01715038718)

কুলাউড়া মাহিন কে হারিয়ে ন্যায়বিচার জন্য লড়ে যাচ্ছেন মা।

Reporter Name
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩৯১ বার পড়া হয়েছে

দেলোয়ার হোসেন
তরফদার

সিলেট বিভাগ ব্যুরো প্রধান

মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ছকাপন গ্রামের সৌদি প্রবাসী শেখ মুক্তার আলী ছেলে শেখ মাহিন ২০ কে গতবছর করোনা বাইরাস মহামারি সারা বাংলাদেশে ল কডাউন গাড়ী বা মানুষ চলাচল বন্দ্ব ছিল তখন ছিল মে মাস ঐ এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তি জনাব হাফিজ আলী ব্যবসায়ী উনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা টাটা পিকাপ গাড়ী নিয়মিত চলতো,আর তখন শেখ মাহিন কে হাফিজ আলী উনার বাড়ীতে মুরগির পোল্ট্রি খামারে কাজে নিতেন।গত ৪/৫/২০ তারিখ মাহিন তার মাকে না বলে হাফিজ আলীর ডাকে হাফিজ আলীর কাজে যায়।মাহিন ছিল একটু সরল তাই হাফিজ আলী যখন যা ইচ্ছে দিত।করোনা বাইরাসে লকডাউন গাড়ী না চল্লে হাফিজ আলীর টাটা পিকাপ বন্দ্ব থাকেনি, হাফিজ আলীর ব্যবসায়ী পাটনার জুবেল আলীর মুরগীর ফারমে মাহিন কাজ করে,কিন্তূ করোনা বাইরাস এ লকডাউন থাকায় অনেক দূর ছিল তাই মাহিন জুবেল মিয়ার পাটনার হাফিজ আলী মিলে মাহিন কে তার গাড়ীতে হেল্ফার কাজে নেওয়ার চেষ্টা করে।মৃত শেখ মাহিন কে তার মা গাড়ীতে যাইতে দিতেন না,ঐ এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তি হাফিজ আলী ও জুবেল আলী মাহিনের কিপ্ত হন মাহিনের হেল্পার কাজে না যাওয়ায়।৪/৫/২০ তারিখ সকালে মাহিন হাফিজ আলীর বাড়িতে কাজে যায়,উনি উনার গাড়ীতে কাজে যাইতে বল্লে মাহিন মানা করে পরে কিভাবে গাড়ীতে কাজে গেল মাহিন মা জানতেন না,কিছু মাহিন তার নিজের ব্যবহার কিত মোবাইল থেকে অনুমান সকাল ৯ টার তার মাকে ফোন করে বলে আমি হাফিজ আলী চাচার টাটা পিকাপ গাড়ীতে আছি মা গাড়ী থেকে নামিয়া আসতে নিদেশ দেন,এর কিছু পর অনুমান ৯.৩০ ঘটিকায় খবর পান মাহিন আলী এক্সিডেন্ট হইছে মা এলাকাবাসির সহযোগিতায় প্রথমে কুলাউড়া উপজেলার হাসপাতালে পরে মাহিনের অবস্থা খারাপ দেখে ডক্টর মাহিন কে সিলেট উছমানি হাসপাতালে নেওয়া হয় সেখানে চিকিৎসা চলাকালিন অবস্তায় শেখ মাহিন মারাযায়।পরে সিলেট কতোয়ালি থানার এস আই দেলোয়ার হোসেন মাহিনের সুরতহাল রেড়ি করেন,মাহিনের শরীরে প্রতিটি অংগে জখমের আগাত মারার চিন্ন পাওয়া যায়।পরে মাহিনের দাফন শেষে মাহিনের মা কুলাউড়া থানায় চারজন কে বিবাদী করে অভিযোগ দাখিল করেন কিন্তূ কুলাউড়া থানার পুলিশ মাহিনের মার অভিযোগ ভুল বলে পুলিশ কতৃক নিজে অঞ্জাত আসামি দিয়ে এক্সিডেন্ট পেনেল কোট মামলা রুজু করেন।মামলা নং ৭৫/২০ এর বাদি তদন্তকারী অফিসার এস আই নিরঞ্জন কে বার বার হাফিজের গাড়ীর নাম্বার দেন পরে হাফিজ আলীর ড্রাইভার এর বাড়ী থেকে টাটা পিকাপ কুলাউড়া থানায় নিয়ে আসেন এবং গাড়ীতে মাহিন হত্যার রক্তের দাগ পান। কিন্তূ মাহিন হত্যার সাক্ষীগন বার বার এস আই নিরঞ্জন কে গাড়ীটি হাফিজ ও জুবেল এর মালিকানা গাড়ী ছিল।হাফিজের গাড়ীতে তারা মাহিন কে যাইতে দেখছে।কিন্তূ তদন্তকারী অফিসার তাদের কথামত জবানবন্দি না নিয়া মনগড়া জবানবন্দি রেকর্ড করে আদালতে মামলা ফাইনাল রিপোর্ট দেন,মৃত শেখ মাহিন এর মা ছেলে হত্যার বিচার চেয়ে গত ৬/১/২০২১ তারিখ মৌলভীবাজার কুলাউড়া বিচারক আদালতে নারাজি দেন,এই নারাজি টাটা পিকাপ গাড়ীর নাম্বার চারজন কে বিবাদী করে হত্যা মামলা আমলে নিতে আবেদন করেন,বিবাদীগন ১ হাফিজ আলী পিতা হাজী কলা মিয়া সাং কাডেরা থানা কুলাউড়া। ২ জুবেল আলী পিতা হারিছ আলী সাং জায়ফরনগর থানা জুড়ী,৩ জইন উদ্দিন পিতা অঞ্জাত সাং টালিয়াউড়া গোয়ালবাড়ী থানা জুড়ী ড্রাইভার। ৪ তারেক মিয়া পিতা সুরুজ মিয়া সাং জায়ফর নগর থানা জুড়ী। এই বিবাগন ও তাদের প্রভাবশালী ব্যক্তি মাহিনের পরিবার কে বার বার হুমকি দামকি দিচ্ছে এই মামলা পরিচালনা না করতে, না হয় মাহিনের মত তারা রাস্তায় কোথায় যাওয়ার পথে গাড়ী চাপা দিয়া প্রানে হত্যা করে এক্সিডেন্ট দেখানো হবে,মাহিনের পরিবার আতংকিত আছে তাদের একটি দ্বাবি মাহিনের হত্যার আসামি সাজা পায়।আগামি আরও বিস্তারিত জানতে পারবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2020 DainikBangladesh71Sangbad
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )