1. clients@www.dainikbangladesh71sangbad.com : DainikBangladesh71Sangbad :
  2. frilixgroup@gmail.com : Frilix Group : Frilix Group
  3. kaziaslam1990@gmail.com : Kazi Aslam : Kazi Aslam
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০১:২৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
জরুরী নিয়োগ চলছে জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল দৈনিক বাংলাদেশ ৭১ সংবাদ দেশের প্রতিটি বিভাগীয় প্রতিনিধি, জেলা,উপজেলা, স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি, ক্যাম্পাস ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি বা সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। সাংবাদিকতা সবার স্বপ্ন, আর সেই স্বপ্ন পূরণ করতে আপনাদেরকে সুযোগ করে দিচ্ছে দৈনিক বাংলাদেশ ৭১ সংবাদ দেখিয়ে দিন সাহসীকতার পরিচয়, অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে সাংবাদিকতার বিকল্প নেই। আপনার আশপাশের ঘটনা তুলে দরুন সবার সামনে।হয়ে উঠুন আপনিও সৎ, সাহসী সাংবাদিক। দৈনিক বাংলাদেশ ৭১ সংবাদ পোর্টাল নিয়োগ এর নিদের্শনাবলী: ১/জীবন বৃত্তান্ত ( cv) ২/জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি। ৩/সদ্যতোলা পাসপোর্ট সাইজের ছবি ১কপি। ৪/সর্বনিম্ন এইচএসসি পাস/সমমান পাস হতে হবে। ৫/বিভিন্ন নেশা মুক্ত হতে হবে। ৬/নতুনদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। ৭/স্মার্টফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে। ৮/স্মার্টফোন ব্যবহারে পারদর্শী হতে হবে। ৯/দ্রুত মোবাইলে টাইপ করার দক্ষতা থাকতে হবে। ১০/বিভিন্ন স্থানে ভ্রমন এর মানসিকতা থাকতে হবে। ১১/সৎ ও পরিশ্রমী হতে হবে। ১২/অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই। ১৩/নারী-পুরুষ আবেদন করতে পারবেন। ১৪/রক্তের গ্রুপ যুক্ত করবেন। ১৫/স্থানীয় দের সাথে পরিচয় লাভ করতে হবে। ১৬/উপস্থিত বুদ্ধি, সঠিক বাংলা বানান, ও শুদ্ধ বাংলায় পারদর্শী হতে হবে। ১৭/ পরিশ্রমী হতে হবে যোগাযোগের জন্য ইনবক্সে মেসেজ করুন cv abuyousufm52@gmail.com দৈনিক বাংলাদেশ ৭১সংবাদ মোবাইল নং(01715038718)

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত ও পরিক্ষীত সৈনিক শেখ উজ্জ্বল।

Reporter Name
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০
  • ৫৯৬ বার পড়া হয়েছে

আবু ইউসুফ বিশেষ প্রতিনিধি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বাস্ত ও পরিক্ষীত ঢাকা কলেজের অত্যন্ত জনপ্রিয় ও মেধাবী ছাত্রনেতা শেখ উজ্জ্বল। (১৯৯৪ সাল থেকে ২০০০)
সহ সভাপতি ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ থেকে ঢাকা মহানগর (উত্তর) ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য দ্বায়িত্ব পালন শেষ করেন ২০০০ সালে। (অনার্স) মাস্টার্স ও উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ পরিক্ষা দিয়ে ২০০১ সালে কিছুদিন শুধু রাজনীতি নিয়েই দিনরাত কাটিয়েছেন অাসাফো র প্রতিষ্টাতা ও বিটিভির জনপ্রিয় জ্ঞান জিজ্ঞাসা মুলুক অনুষ্ঠান “” জানা-অজানা” র উপস্থাপক ও পরিচালক শেখ উজ্জ্বল।

এরই মধ্যে সাজানো নির্বাচনে সার্বক্ষনিক কাজ করে ক্লান্ত ও নির্বাচনে ক্ষমতাচ্যুত দলের ছাত্রনেতা শেখ উজ্জ্বল থেমে থাকেননি। যদিও তার বন্ধুরা তখন রাজনীতি ছেড়ে সদ্য ক্ষমতাপ্রাপ্ত দলের নেতাদের তোসামদিতে ব্যাস্ত। কেউ কেউ সরাসরি বিএনপি ও ছাত্রদলের জিয়ার সৈনিক হয়ে গিয়েছিল- মানে চেহারা চেঞ্জ। বড় বড় চাকরী বাগিয়ে নিয়ে বেশ অারাম অায়েস করে তারা।

এদিকে বিএনপি জামাত ক্ষমতা পেয়েই সারাদেশে রক্তের বন্যা সৃষ্টি করতে থাকে। হাজার হাজার হিন্দু ও অাওয়ামী লীগ নেতাকর্মী জীবন বাচাতে ঢাকায় অাশ্রয় গ্রহন করে এবং অনেকে ভারতে চলে যাওয়ার খবর অাসতে থাকে। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পযন্ত ক্ষমতায় থাকা অনেক নেতাই অাত্মগোপনে চলে যায়। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধানমন্ডির সুধা সদনে প্রায় অবরুদ্ধ করে রাখে। প্রতিবাদ করতে রাস্তায় নামলে সরাসরি শশুর বাড়ী অার রিমান্ডের নামে নির্যাতন চলে বিরোধী

নেতাকর্মীদের উপর। ভয়ে কেউ ঘরে ঘুমাতে পারেনি। সাবেক ছাত্রনেতা শেখ উজ্জ্বল তখন তার বন্ধুদের মত অাত্মগোপন করেনি। জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার অাহবানে সাড়া দিয়ে বিসিএস পরীক্ষার খাতা ফেলে অাওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দিনরাত যাপন করে বিএনপি জামাত জোট সরকারের নির্যাতনে অাহত বাড়ি ছাড়াদের খাবার ও ওষুধ বিতরন করতেন। দিনে ধানমন্ডির সুধাসদনের পাশেপাশে অার সন্ধা হলে দলীয় কার্যালয়ে তৎকালীন জনপ্রিয় মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ভাই, মায়া ভাই ও শাহ অালম মুরাদ ভাইয়ের সাথে কাজ করতেন।

অবিভাক্ত ঢাকার নগর পিতা মোহাম্মদ হানিফ, ছাত্রলীগ সভাপতি লিয়াকত শিকদার, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাইফুজ্জামান শিখর ভাই এর পরামর্শে ও সহযোগিতায় প্রায় অবরুদ্ধ সংসদের বিরোধী দলীয় নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নিকট থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম(অাসাফো) নামের সংগঠন ও ৩১ সদস্যবিশিষ্ট অাহবায়ক কমিটি ( অাহবায়ক শেখ উজ্জ্বল ও সদস্য সচিব এ অার রুমী ও সাংবাদিক সাবান মাহমুদকে যুগ্ম অাহবায়ক করে) একটি কমিটি অনুমোদন করে অানেন অাসাফো র বর্তমান কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ উজ্জ্বল এই শর্তে যে, নেতাকমীশুন্য রাজপথে শিল্পী সাংবাদিক সাংস্কৃতিক নেতাকর্মীদের মাধ্যমে জোট সরকারের দুঃশাসনের প্রতিবাদ করবে এবং সাধারণ জনগনকে রাজপথে ঝাপিয়ে পড়তে অাহবান জানাবে।

জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সহযোগিতার অাশ্বাস পেয়ে ঢাকা কলেজের মেধাবী ছাত্রনেতা শেখ উজ্জ্বল নিজের সুখ স্বাচ্ছন্দ, প্রেম ভালবাসা, চাকরী বা ব্যাবসাসহ সব স্বপ্ন ভুলে জীবনবাজি রেখে কালো কাপড়ের ইউনিফর্ম পরে (অাসাফো ড্রেস) গলায় গামছা বেঁধে ঢোল নিয়ে মাত্র ১০/১২ জন শিল্পী সাংবাদিক নিয়ে অাওয়ামী লীগ প্রধান কার্যালয়ের চারপাশে গান গেয়ে, শ্লোগান দিয়ে মুখরিত করে তোলেন বাংলাদেশ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম (অাসাফো) ব্যানারে।
সংগঠনের কর্মকান্ড দেখে জাতীয় নেতা মেয়র মোহাম্মদ হানিফ, অগ্নি কন্যা মতিয়া চৌধুরী, মোফাজ্জল হোসেন মায়া, ওবায়দুল কাদের, হাজী সেলিম, যুবলীগের চেয়ারম্যান নানক ও সাধারণ সম্পাদক অাজম ভাই সহ সকল কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সংগঠনের প্রতিদিনের কর্মকান্ডে নিজেরা বক্তব্য দিতেন এবং সংগঠনের অাহবায়ক শেখ উজ্জ্বলকে সহযোগিতা শুরু করেন।
বাংলাদেশ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম(অাসাফো) র কর্মকান্ডে খুশি হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা সরাসরি অর্থ সহযোগিতা দেয়া শুরু করেন এবং অাসাফোর অনুষ্টানে যাওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেন অাসাফো নেতা শেখ উজ্জ্বল এর নিকট।

প্রচন্ড খুশীতে সাংস্কৃতিক সংগঠক শেখ উজ্জ্বল ২০০২ সালে জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার ইচ্ছের কথা ঢাকা কলেজের মেধাবী ছাত্র, গোপালগঞ্জ থেকে বারবার নির্বাচিত এমপি ও অাওয়ামী লীগ নেতা,জননেতা কর্ণেল(অব) ফারুক খান এমপিকে সংগঠনটির প্রধান উপদেষ্টা হওয়া ও জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার অাবেদন জানান। তিনি সদয় সম্মতি জানিয়ে সার্বিক সহযোগিতার কথা ব্যাক্ত করেন ।
জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার পরামর্শ ও ছাত্রলীগের সার্বিক সহযোগিতায় নেত্রী থেকে প্রাপ্ত ১৫ দিনের মধ্যে প্রধান উপদেষ্টাসহ উপদেষ্টা কমিটি ও সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি অনুমোদনের জন্য তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা অাওযামী লীগ সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে দিতে সক্ষম হয়েছিলেন অাসাফোর প্রতিষ্টাতা ও সাবেক ছাত্রনেতা শেখ উজ্জ্বল।

অাসাফোর প্রধান উপদেষ্টা কর্ণেল(অব) ফারুক খান এমপি এবং তার কন্যা, বর্তমান তরুণ প্রজন্মের জনপ্রিয় নেতা কানতারা কে খানের নিঃস্বার্থ সহযোগিতায় একটি সুশৃঙ্খল কর্মী বাহিনীর সংগঠন সুপরিচিত ঘটিয়ে বিএনপি জামাত জোট সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে ঢাকার রাজপথে পথ নাটক, নানান ডিসপ্লে, ফাঁসি মঞ্চ বানিয়ে, মানববন্ধন কর্মসূচি দিয়ে অাওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্র লীগ সহ সকল কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হন তৎকালীন বিটিভির সঙ্গীত পরিচালক শেখ উজ্জ্বল। অাসাফোর কর্মকান্ডে দৃষ্টি পড়ে বিএনপি জামাত জোট সরকারের। শুরু হয় শিল্পী সাংবাদিক সাংস্কৃতিক নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও নির্যাতন।

বিএনপি সন্ত্রাসী ও বারবার পুলিশি হামলায় বারবার রক্তাক্ত হয়ে, মেডিকেলের বারান্দায় ও রমনা পার্কে রাত কাটাতে হয়েছে প্রিয় অবিভাবক শেখ উজ্জ্বলকে। সূত্রঃ দৈনিক বাংলাদেশ ৭১ সংবাদ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2020 DainikBangladesh71Sangbad
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )